করোনা ধ্বংসকারী বিশেষ মাস্ক তৈরি করেছে ইসরায়েলী গবেষকরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইউএসবি পোর্টযুক্ত বিশেষ এক ধরণের মাস্ক তৈরি করেছে ইসরায়েলের গবেষকরা। দাবি, মোবাইল ফোন চার্জারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে পুরোপুরি জীবাণুমুক্ত করা যাবে এই মাস্ক। পূনব্যবহারযোগ্য এ মাস্ক পরিবেশবান্ধব বলে দাবি গবেষকদের। ইসরায়েলের তৈরি এই মাস্ক অনেকটা এন৯৫’র মতো দেখতে। সামনে আছে একটা ভাল্ব। তবে এটি একবার ব্যবহার করে ফেলে দিতে হবে না। বরং বিশেষ প্রক্রিয়ায় জীবাণুমুক্ত করে ব্যবহার করা যাবে বারবার।

মাস্কের সাথেই আছে মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট। মোবাইল চার্জারের মাধ্যমে পাওয়ার সংযোগ দিলে, এর কার্বন ফাইবারে পাওয়া যায় ৬৫ থেকে ৭০ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা। যা করোনাভাইরাস ধ্বংসে যথেষ্ট। ৩০ মিনিটের মতো সময় লাগে পুরো জীবাণুমুক্তকরন প্রক্রিয়ায়। গবেষক দলের প্রধান অধ্যাপক ইয়ের আইন আলী বলেন, মাস্ক জীবনুমুক্ত করার বিষয়টি ভীষণ স্বস্তিদায়ক। প্রতিবার ব্যবহারের পর যখন মাস্ক ফেলে দেই, ওটার সাথেতো জীবাণু লেগেই থাকে। যা একেবারেই স্বাস্থ্যসম্মত নয়। তাই ভাইরাস ধ্বংসের এ আইডিয়া আমার খুব পছন্দ হয়েছে।

এই গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছেন হাইফার টেকনিয়ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ইয়ের আইন আলি। তার দাবি, অর্থনৈতিক ও পরিবেশ দু’দিক থেকেই লাভজনক এ মাস্কের ব্যবহার। অধ্যাপক ইয়ের আইন আলী বলেন, এটি ১০ ওয়াট ক্ষমতাবিশিষ্ট। বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে ধ্বংস হবে করোনাভাইরাস। আমাদের মূল উদ্দেশ্য হলো মাস্কের পূনর্ব্যবহার। কারণ পরিবেশের সুরক্ষায় এটাই সমাধান। কারণ, সবাই ডিসপোজ্যাবল মাস্ক ব্যবহার করলে এ বছরই ৫শ’ কোটির বেশি মাস্ক দরকার হবে। যা মারাত্মক পরিবেশ বিপর্যয়ের কারণ হবে।

গত মার্চে মাস্কটির পেটেন্টের জন্য আবেদন করেছেন গবেষক দল। বাণিজ্যিক উৎপাদনের লক্ষ্যে এরই মধ্যে তাদের আলোচনা চলছে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সাথে। গবেষকরা বলছেন, মাত্র ১ ডলারের মধ্যেই রাখা যাবে এর দাম।

আরও খবরঃ

Leave a Comment