অক্সিজেন সিলিন্ডারের সরবরাহ বাড়ান

করোনা চিকিৎসায় অক্সিজেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ জন্য এ সময় অক্সিজেনের চাহিদা বেড়ে গেছে কয়েকগুণ। আর এ সুযোগে দামও বেড়েছে পাল্লা দিয়ে। এ অবস্থায় অসহায় হয়ে পড়ছেন মানুষজন। প্রয়োজনে যেন রোগীরা অক্সিজেন পান সেটি নিশ্চিত করাটাই এখন জরুরি। এ-সংক্রান্ত খবর থেকে জানা যায়, বিক্রি বেড়ে যাওয়ায় অক্সিজেন সিলিন্ডারের সংকটে পড়েছেন সবাই, প্রায় পাঁচগুণ দাম বেড়ে মাঝারি মানের একটি অক্সিজেনের সিলিন্ডার ও আনুষঙ্গিক সরঞ্জাম বিক্রি হচ্ছে ২৬ হাজার টাকা পর্যন্ত। অথচ তিন মাস আগেও অক্সিজেন সিলিন্ডারের এই সেট পাওয়া যেত পাঁচ থেকে ছয় হাজার টাকায়। সাধারণ রোগীর শরীরে অক্সিজেনের উপস্থিতি ৯০ শতাংশের…

করোনা

লেখক-ইলিয়াস আরাফাত : রিপোর্টটা হাতে আসতেই অন্য রকম হয়ে গেল পরিবেশটা। কেমন যেন গুমটে আর ভুতুড়ে পরিবেশ। রাকিবের কাছ থেকে একে একে সবাই যেন সরে পড়লো। যে কয়েকজন বা দুর থেকে দেখছে তাদের চোখেমুখে আতঙ্কের ছটা। জলভরা চোখে রাকিবের বেডের পাশে দাঁড়িয়ে আছে তার বাবা রাহাত চৌধুরী। করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে রাকিবের শরীরে। চোখের পানি মুছে ছেলের দিকে তাকায়। রাকিবের চোখে ভয়। দীর্ঘদিন ধরে টিভি আর পত্রিকার সংবাদে করোনা যে বিস্তার ভয় ধরিয়েছে তার কিছুটা প্রভাব পড়েছে রাকিবের মনেও। বাবা আমি কি বাঁচবো না? রাকিবের করুন আকুতি। রাহাত চৌধুরী চোখের…

বাড়িভাড়া সংক্রান্ত সমস‌্যা সমাধানে সরকারি হস্তক্ষেপ প্রয়োজন

লেখক : শাহাদাত হোসেন মুন্না : সময়ের সাথে সাথে করোনার থাবা দীর্ঘ হচ্ছে। বিশ্বজুড়ে এই দুর্যোগকালে অর্থনৈতিক প্রবাহও থমকে গেছে। একই সাথে মানুষের স্বাভাবিক জীবন যাপনও ঝুঁকির মধ‌্যে পড়েছে। করোনার ক্রান্তিকাল কবে কাটবে কারো জানা নেই। আমরা সবাই এ ব‌্যাপারে আঁধারে রয়েছি। পরিস্থিতি বিচারে আদৌ স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারব কি না তা অনিশ্চিত। সংক্রমণের এই সময়টিতে জীবিকা নির্বাহের জন‌্য মানুষের ব্যবসা-বাণিজ্য, চাকরি, কর্মস্থল কোনো কিছুই আর আগের মতো নেই। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত কলকারখানা, ব‌্যবসা প্রতিষ্ঠান প্রভৃতি বন্ধ থাকবে। এতে বেকার হয়ে বাড়ি বসে আছেন লাখ লাখ মানুষ। অনেকেই…

করোনা: আসুন আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হই

নজরুল ইসলাম জুলু: সারা বিশ্ব বর্তমানে ‘করোনাভাইরাস’ আতঙ্কে ভীতসন্ত্রস্ত। এখন সকল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুই হচ্ছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। মানুষকে সচেতন করতে চারিদিকে যেমন প্রচারণা চলছে। তেমনি তেমনি করোনা নিয়ে অসত্য ও বিভ্রান্তিকর তথ্যও কম ছড়াচ্ছে না। এ অবস্থায় আমজনতা ঠিক কী করবেন, কোনটা করবেন- আর কোনটা করবেন না তা ঠাওর করে উঠতে পারছেন না! করোনাভাইরাস নিয়ে একেক জন যেন বিশেষজ্ঞ হয়ে উঠেছেন। তাই এই প্রসঙ্গে কিছু লিখে আর থাকা গেলো না। এই মহামারী সম্পর্কে আমার মনের কোণে জমে থাকা কিছু কথা সবার সাথে আজ শেয়ার করতে চাই। COVID-19এ এই পর্যন্ত কতজন…

চারদিকে দূষিত পরিবেশ বাতাসেও যেন রক্তের গন্ধ

উপচার ডেস্ক : জলবায়ু দূষণের কারণে পুরো বৈশ্বিক পরিবেশটাই আজ চরম দূষণের শিকার। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির পাশাপাশি বিশ্বের রাজনৈতিক আবহটাও যুদ্ধ-যুদ্ধ অবস্থার মুখোমুখী হয়ে পড়ায় প্রচণ্ড শীতের বাতাসেও যেন উত্তপ্ত রক্তের গন্ধের আগাম পরশ অনুভূত হচ্ছে। যে বাতাসটি মধ্যপ্রাচ্য থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। এমনই সময়ে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বায়ুদূষণজনিত পরিবেশে বাংলাদেশের নেতৃবৃন্দের মধ্যকার সুপরিমিত মেধা ও কাণ্ডজ্ঞানসম্পন্ন প্রখর ঘ্রাণশক্তির অধিকারী দেশের দ্বিতীয় মেয়াদের সরকারি দলের সাধারণ সম্পাদক ও দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্বপ্রাপ্ত সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গত ৪ জানুয়ারি ঢাকার একটি অনুষ্ঠানে বলেছেন- ‘আমাদের দেশের বাতাসে ষড়যন্ত্রের…

রোদ বৃষ্টি ঝড়ে সাংবাদিকের কর্তব্য পালন ২৪ঘন্টা

সৌমেন মন্ডল :- সাংবাদিক মানে শুধু পদে পদে বাধা আর ঝুঁকির হাতছানি। তবুও কর্তব্য পালনে অকুতোভয় কলমসৈনিক সব কিছু উপেক্ষা করে ছুটে চলেন দুর্বার গতিতে। সকালে ঘুম থেকে উঠে সংবাদ সংগ্রহ করতে যায়,সারাদিন সংবাদ সংগ্রহ করেন।কোখায় গোসল,কোথায় ভাত? ল্যাপটপে বসে তারপর সংবাদ ভালোভাবে সম্পাদন করেন।সংবাদটি লিখেন তারপর ভালোভাবে বাছাই করে কোথাও ভুল আছে কিনা? এর মধ্য আবার একটি দূর্ঘটনার খবর এলে আবার ছুটে যেতে হয়।তথ্য সংগ্রহ করে আবার সত্য ঘটনা জনগনের সামনে তুলে ধরতে। একটি সংবাদ তৈরি করতে কত জন লোকের কাছে যেতে হয়।প্রথমে বাদীর কথা,তারপর বিবাদির কথা,তারপর এলাকা বাসির…

সাংবাদিক ফটিক ভাইয়ের চলে যাওয়া-মৃত্যু নাকি পদ্ধতিগত হত্যা?

এস এম আতিক : ফটিক ভাইয়ের মৃত্যুর কারণ স্ট্রোক। তিনি কেনো স্ট্রোক করলেন? কারণগুলো অনুসন্ধান করা দরকার। তার মৃত্যুর জন্য আমাদের দায় আছে কি না তা বিশ্লেষণ করা দরকার। আমাদের দ্বারা তিনি পদ্ধতিগত হত্যাকাণ্ডের স্বীকার হলেন কি না সেটাও ভাবা দরকার। তিনি স্ট্রোক করেছেন দুশ্চিন্তা থেকে। তার দুশ্চিন্তা করার পিছনে বড় দুটি কারণ হলো- ১. প্রেসক্লাব থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা। ২. অর্থনৈতিক দৈন্য। ফটিক ভাইকে রাজশাহী প্রেসক্লাবের পদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়েছিলো। প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের বিনোদনের যায়গা। সেখানকার কোনো সাংবাদিকের করা রিপোর্টের দায় সভাপতির ওপর বর্তায় না। অথচ…

বাংলাদেশের পূর্ণ বিজয় ২৬ মার্চ থেকে ১৬ ডিসেম্বর

নজরুল ইসলাম তোফা : মুক্তিযুদ্ধ আমাদের গর্ব ও অহংকার। এ মুুুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আমরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধুর- সেই সোনার বাংলাদেশ এবং দিনেদিনেই এসে দাঁড়িয়েছে প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ। ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশের নিকট থেকে এদেশের জনগণ স্বাধীনতা লাভের পর থেকেই পাকিস্তানের- দুই প্রদেশের মধ্যে যেন বিভিন্ন প্রকার ইস্যু নিয়ে সম্পর্কের অবনতি ঘটে, সেগুলোর মধ্যে কিছু তুলে ধরা যেতে পারে যেমন ভূূমিসংস্কার, রাষ্ট্রভাষা, অর্থনীতি বা প্রশাসনের কার্যক্রমের মধ্যে দু’প্রদেশের অনেক বৈষম্য, প্রাদেশিক স্বায়ত্ত শাসন, পূর্ব পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা ও  নানা ধরনের সংশ্লিষ্ট বিষয়েই সংঘাত ঘটে। মূলত ভাষা আন্দোলন থেকে বাংলাদেশের মুুুক্তিযুদ্ধের…

নিরাপদ হোক কোরবানি ও ঈদ

উপচার ডেস্ক : দুই দিন সরকারি ছুটির সঙ্গে তিন দিনের ঈদের ছুটি। পাঁচ দিনের লম্বা ছুটিতে সব ভোগান্তি উপেক্ষা করে শুরু হয়েছে ঈদ যাত্রা। মানুষ যাচ্ছে প্রিয়জনের কাছে ঈদ উৎসবে যোগ দিতে, ঈদের আনন্দ সবার সঙ্গে ভাগাভাগি করে নিতে। আসন্ন ঈদুল আজহা ও জাতীয় শোক দিবস ঘিরে সারা দেশে নিরাপত্তা ও নজরদারি অনেক বাড়িয়েছে পুলিশ। সতর্ক অবস্থানে আছে বিশেষ ইউনিট ও গোয়েন্দারা। বিগত বছরগুলোতে আগস্ট মাসে জঙ্গি হামলা ও হামলার পরিকল্পনা, সম্প্রতি পুলিশকে টার্গেট করে বোমা বিস্ফোরণ ও বোমা ফেলে রাখার চার ঘটনা এবং বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে এবার শঙ্কা বিরাজ…

ডেঙ্গু প্রতিরোধে যা যা করণীয়

নিজস্ব প্রতিনিধি: সম্প্রতি জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টিকারী রোগটির নাম ডেঙ্গু। এটি ভাইরাসজনিত একটি মারাত্মক রোগ। এই ভাইরাসের নাম ফ্লাডি ভাইরাস। এডিস মশার কামড়ে বিশেষ করে এডিস এজিপটাইয়ের মাধ্যমে এটা ছড়িয়ে পড়ে। এডিস এলবোপিকটাস মশাও ডেঙ্গুর ভাইরাস বহন করে। মশা দেখতে গাঢ় নীলাভ কালো রঙের, মশার সমস্ত শরীরে আছে সাদা সাদা ডোরা কাটা দাগ। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এসব প্রজাতির মশা পাওয়া যায় থাইল্যান্ড, ইন্ডিয়া, ফিলিপাইন, ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে বিশেষ করে পোর্টেরিকা, কিউবা, মধ্য আমেরিকা ও আফ্রিকাতে। কেবল উষ্ণ আবাহওয়ায় এই মশা সক্রিয় হয়ে ওঠে। ভাইরাস শরীরে প্রবেশের পর সুপ্তাবস্থায় থাকে ৩-১৫ দিন (সাধারণত…